সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪

ওরেগনে রোডিও অ্যারেনায় ষাঁড়ের হামলায় আহত ৪

প্রকাশিত: ০১:৫৪, ১১ জুন ২০২৪ | ১৫

ওরেগন স্টেইটে সিস্টার্স শহরে শনিবার ৮৪তম সিস্টারস রোডিও অ্যাসোসিয়েশনের রোডিওর সময় অ্যারেনার ভেতর থেকে আচমকা একটি ষাঁড় দর্শকদের ওপর চড়াও হয়। এতে চার জন দর্শক আহত হয়েছেন বলে রোববার জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। আহত চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এনবিসি নিউজের প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, পার্টি বাস নামের স্তন্যপায়ী ষাঁড়টি একজন দর্শককে আক্রমণ করছে। ঘটনাটি রাতের শেষ রাইড নির্ধারিত হওয়ার ঠিক আগে ঘটে।

সিস্টার্স রোডিও অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, ষাঁড়টি অ্যারেনার বাধা ডিঙিয়ে রোডিও গ্রাউন্ডে থাকা দর্শকদের আক্রমণ করে। তাৎখনিকভাবে জরুরি সাহায্যের জন্য আবেদন করেন আয়োজকরা।

সিস্টারস রোডিও জানিয়েছে, আহতদের মধ্যে দুজনকে শনিবার রাতে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

ডেসচুটস কাউন্টি শেরিফের অফিস লিউটেন্যান্ট জেসন জেনস বলেন, আহতদের মধ্যে তিনজনকে অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এবং একজনকে শেরিফের ক্রুজারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

সিস্টারস রোডিও একটি বিবৃতিতে বলেছে, ‘আমাদের রোডিও পিকআপ ম্যান ও অ্যারেনার কর্মীরা অপ্রত্যাশিত ঘটনাটি বুঝে ওঠার আগেই রোডিওর ষাঁড় সীমানা প্রাচীর ডিঙিয়ে রোডিও গ্রাউন্ডের মধ্য দিয়ে দৌড়ে যায়।’

একটি পৃথক বিবৃতিতে সিস্টারস রোডিওর পক্ষ থেকে রোববার বলা হয়েছে, ‘আহত সবাই এখন বাড়িতে রয়েছে। খবরটি শুনে আমরা কৃতজ্ঞ।’

আয়োজকরা বলেছেন, ১৯৪০ সালে সিস্টার্সে তাদের প্রথম ইভেন্টের পর এই প্রথম তারা এ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার মুখোমুখি হয়েছে।

প্রফেশনাল রোডিও কাউবয় অ্যাসোসিয়েশন দ্রুত ষাঁড়টিকে নিয়ন্ত্রণের জন্য অ্যারেনার কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়েছে।

পিআরসিএর তথ্য অনুযায়ী, আক্রমণকারী ষাঁড়টি বুধবার সিস্টার্স রোডিও এক্সট্রিম বুল রাইডিং ইভেন্টে অংশ নিয়েছে এবং প্রথম রাউন্ডে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে।

শনিবারের অনুষ্ঠানের আয়োজকরা জানিয়েছেন, পশু চিকিৎসকরা ষাঁড়টিকে পরীক্ষা করেছেন এবং ষাঁড়টি অক্ষত আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে ওয়াশিংটনের মোসেস লেকের বাসিন্দা ও ষাঁড়টির স্টক ঠিকাদার কোরি অ্যান্ড ল্যাঞ্জ রোডিওর সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

আয়োজকরা জানান, পাঁচ দিনব্যাপী বার্ষিক সিস্টার্স রোডিও প্রতিযোগিতা রোববার নির্ধারিত অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়। অনুষ্ঠানে কয়েক শ দর্শক উপস্থিত ছিল।

Mahfuzur Rahman

Publisher & Editor