সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪

 নিউইয়র্কে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির পথমেলায় মানুষের ঢল

প্রকাশিত: ০৫:৩৪, ১০ জুন ২০২৪ | ২২

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির বৈশাখী পথমেলা। ‘বাঙালীয়ানায় বাংলা উৎসব’ শীর্ষক এই অনুষ্ঠানের কর্মকান্ডের মধ্যে ছিলো দুপুরে পান্তা-ইলিশ আর ডাল-ভর্তা-ভাত অ্যাপায়ন আর অপরাহ্নে র‌্যালী, মেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। রোববার (৯ জুন) স্থানীয় ক্যাপ্টেন টিলি পার্ক ও ১৬৫-৬৫ ৮৪ এভিনিউ-তে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শাহ নেওয়াজ গ্রুপ-এর প্রেসিডেন্ট লায়ন শাহ নেওয়াজ এবং গেষ্ট অব অনার ছিলেন নিউইয়র্কের কনসাল জেনারেল নাজমুল হুদা, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আব্দুর রব মিয়া, সাবেক সংসদ সদস্য এম এম শাহীন ও রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর নূরুল আজিম। খবর ইউএনএ’র। 


বেলা ২টার দিকে স্থানীয় ক্যাপ্টেন টিলি পার্কে মধ্যাহ্ন ভোজের মধ্যদিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠানমাল। এসময় খাবার পরিবেশন উদ্বোধন করেন কুইন্স ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ডিষ্ট্রিক্ট লীডার এড লার্জ এটর্নী মঈন চৌধুরী। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, উপদেষ্টা ডা. ওয়াজেদ এ খান, সালেহ আহমেদ, সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার ও সাধারণ সম্পাদক জে মোল্লা সানি, মেলা কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ বিলাল চৌধুরী, যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল ইসলাম সনি প্রমুখ। উপস্থাপনায় ছিলেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ এফ মিসবাহ উজ্জামান। এসময় সংগঠনের উপদেষ্টাদের মধ্যে দরুন নূর, রেজাউল করীম চৌধুরী, এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ, ফরিদ আলম, প্রফেসর শাহাদৎ হাসান, শাহ জে চৌধুরী, সৈয়দ আতিকুর রহমান, জুলকার হায়দার সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 
এছাড়াও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের মধ্যে বাংলাদেশ সোসাইটির সহ সভাপতি ফারুক চৌধুরী, সহ-সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম চৌধুরী, কার্যকরী সদস্য মোহাম্মদ সাদি মিন্টু, শিশু সাহিত্যিক হুমায়ুন কবীর ঢালী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী তোফায়েল চৌধুরী, সানমান এক্সপ্রেস-এর প্রেসিডেন্ট ও সিইও মাসুদ রানা তপন, অ্যাংকর ট্রাভেস ও মানি ট্রাভেলস-এর সিইও এএসএম মাইন উদ্দিন পিন্টু, জাকির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 


পরবর্তীতে ঢাক-ঢোল পিটিয়ে র‌্যালী শুরু হয়ে পথমেলা প্রাঙ্গণ ১৬৫-৬৫ ৮৪ এভিনিউ-তে এস সমতে হয়। সেখানে মূলমঞ্চে শ্রী চিন্ময় সেন্টারের শিল্পীদের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্বে অতিথিবৃন্দ ছাড়াও সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, উপদেষ্টা ডা. ওয়াজেদ এ খান, সালেহ আহমেদ, অধ্যাপিকা হুসনে আরা বেগম, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আব্দুর রব মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিক, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সেলিম, সাবেক কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, সিটি কাউন্সিলম্যান জিম জিনারো, জেবিবিএ’র একাংশের সাধারণ সম্পাদক ফাহাদ সোলায়মান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান কামরুল, কুইন্স বরো প্রেসিডেন্টের অফিসের চীফ ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সাদেক, বিশিষ্ট রাজনীতিক জিল্লুর রহমান, গিয়াস আহমেদ, নিউ আমেরিকান ডেমোক্র্যাটিক ক্লাবের সভাপতি ড. দীলিপ নাথ, জাকির চৌধুরী সিপিএ, খলিল গ্রুপের শেফ খলিলুর রহমান, রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর নূরুল আজিম, ফ্রেন্ডস সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক জে মোল্লা সানি, মেলা কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ বিলাল চৌধুরী, যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল ইসলাম সনি, সদস্য সচিব রিজু মোহাম্মদ, প্রধান সমন্বয়কারী আলমগীর খান আলম সহ অতিথিরা শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। 
অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল নামজুল হুদা বলেন, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি ২৫ বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে। এটা অসাধারণ অর্জন। সুসংগঠিত নেতৃত্বের জন্যই এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। আমাদের জাতীয় জীবনে মেলা ঐতিহ্য বহন করে। তিনি মেলার সার্বিক সফলতা কামনা করেন। 
অনুষ্ঠানে ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি ফখরুল ইসলাম দেলোয়ারের নেতৃত্বে সংগঠনের পক্ষ থেকে কমিউনিটিতে অবদান রাখার জন্য বিভিন্ন জনকে প্ল্যাক প্রদান করা হয়। এসময় সংগঠনের উপদেষ্ঠা কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বে চিত্র নায়িকা মৌসুমী, সঙ্গীত শিল্পী মিলা, বিন্দু কনা সহ সহ প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পী রানো নেওয়াজ, চন্দন চৌধুরী, শাহ মাহবুব, মরিয়ম মারিয়া সহ আমানত হোসেন আমান, অনিক রাজ প্রমুখ সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এছাড়াও নৃত্যাঞ্জলীর শিল্পীরাও অংশ নেন। মেলায় ছিলো মানুষের ঢল। 


অনুষ্ঠানে কুইন্স বরো প্রেসিডেন্ট ডোনাবান রিচার্ডের পক্ষ থেকে সাইটেশন প্রদান করা হয়। এছাড়াও কমিউনিটি সেবায় বিশেষ অবদান রাখার জন্য মেলার গ্র্যান্ড স্পন্সর নূরুল আজিম, ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সাদেক, রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী সাব্বির আহমেদ-কে প্ল্যাক প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্ব উপস্থানায় ছিলেন এএফ মিসবাহউজ্জামান, জে মোল্লা সানি ও উপস্থাপিকা সোনিয়া। 
মেলা কমিটির অন্যান্য কর্মকর্তাদের মধ্যে ছিলেন: যুগ্ম আহ্বায়ক- রাসেক মালিক, লিটন আহমেদ, এস এম সোলায়মান, তরিকুল ইসলাম তুহিন, রাশেদুজ্জামান হিমু, সমন্বয়কারী- আনোয়ার হোসেন, আবুল কাশেম, সুমন খান, মোহাম্মদ জাসিম, নিপা জামান, ইফাত ইয়াসমিন, যুগ্ম সদস্যসচিব- এনায়েত মুন্সী, নওশাদ হায়দার, ইকবাল আহমেদ, আপন এইচ ইমাম এবং অর্থ উপ কমিটির চেয়ারম্যান বাবুল আখতার। সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন- মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, সেবুল মিয়া, বাবুল হায়দার, রেজাউল আলম অপু, কাজী আবু নাসের, আফরোজা রোজী, ফয়সাল আলম, আই খান সুলতান, সহদেব তালুকদার, শরিফ হোসেন, জিল্লুর রাহিম, তামান্না আইরিন ও মহিউদ্দিন পাটোয়ারী। 

Mahfuzur Rahman

Publisher & Editor