বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

নিজ উদ্যোগে কান উৎসবে ভাবনা

প্রকাশিত: ০৬:২১, ১৫ মে ২০২৪ | ১৫

‘কান চলচ্চিত্র উৎসব’ বিশ্বের শোবিজ অঙ্গনের অন্যতম বড় চলচ্চিত্র উৎসব। দক্ষিণ ফ্রান্সের রিজোর্ট শহর কান-এ প্রতি বছর সাধারণত মে মাসে এই উৎসব হয়ে থাকে। গতকাল মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে এই উৎসবের ৭৭তম আসর। 

তিন বছর আগে আঁ সার্তে রিগায় প্রতিযোগিতা করেছিল বাংলাদেশের ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। কানের ফিল্মবাজার ‘মার্শে দ্যু ফিল্ম’-এ সারা দুনিয়ার চলচ্চিত্র জগতের মানুষ নিজেদের প্রজেক্ট নিয়ে হাজির হয়। বিগত কয়েক বছর বাংলাদেশ থেকে অনেকেই সেখানে অংশ নিয়েছেন।এবার সে রকম কোনো খবর এখনো পাওয়া যায়নি।

তবে এরই মধ্যে কানসৈকতে হাজির হয়েছেন আশনা হাবিব ভাবনা। কোনো ছবি নিয়ে নয়, ‘ভয়ংকর সুন্দর’ অভিনেত্রী সেখানে হাজির হয়েছেন নিজ উদ্যোগে। 

ভাবনা বলেন, ‘আমার কাছে এটা স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতো ঘটনা। অনেক দিনের ইচ্ছা ছিল কান উৎসবে আসার। নিজের চেষ্টায় আমি যে এখানে আসতে পেরেছি এটাই অনেক বড় পাওয়া। কোনো ছবি নিয়ে আসতে পারলে অনেক ভালো লাগত। তবে অভিনেত্রী হিসেবে এখানে যে আসতে পেরেছি এটা অনেক আনন্দের।

তিনি বলেন, আমার এ আসার পেছনে কাউকে ধন্যবাদ দিতে হবে না। এ কারণে আমি গর্বিত। আবেদন করার পর সব কাগজপত্র দেখে আমাকে দক্ষিণ এশিয়ার একজন অভিনেত্রী হিসেবে উৎসবে অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়।

ভাবনা আরও বলেন, এখানে অনেক দেশের চলচ্চিত্র পরিচালক-প্রযোজকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ হচ্ছে। সারা দুনিয়ার চলচ্চিত্র বাজার কত বড় তার একটা ধারণা হচ্ছে আমার। আমার অভিনয় করার স্পৃহাটা আরও বাড়ছে।

এর আগে বাংলাদেশ সময় ১২ মে রাতে ভাবনা কান চলচ্চিত্র উৎসব আয়োজনে অংশ নিতে সেখানে পৌঁছান। পৌঁছেই ফেসবুক পোস্টে ভাবনা লিখেছেন, ‘ফ্রম পুরান ঢাকা টু ফেস্টিভ্যাল ডি কান।’

মা-বাবা ও একমাত্র ছোট বোন নিয়ে এখন ঢাকার ধানমন্ডিতে থাকলেও একটা সময় ভাবনার কেটেছে পুরান ঢাকায়। পড়াশোনার পাশাপাশি ছোটবেলায় মা–বাবা তাকে ভর্তি করিয়ে দেন নাচের স্কুলে। নাচের শিল্পী হিসেবে ভাবনার রয়েছে জাতীয় পুরস্কারও। মায়ের ইচ্ছা ছিল, মেয়ে গানেও পরিচিতি পাক। কিন্তু ভাবনা সবচেয়ে বেশি পরিচিতি পান অভিনয়ে। ছোটপর্দার পাশাপাশি একটা সময় বড়পর্দায়ও অভিনয় শুরু করেন। এখন অভিনয়ের নতুন মাধ্যম ওটিটিতেও কাজ করছেন তিনি।

Mahfuzur Rahman

Publisher & Editor