বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

বাইকারদের ত্বকের যত্ন ও কিছু পরামর্শ

প্রকাশিত: ০৩:৩৭, ১৪ মে ২০২৪ | ১৫

রোদ, ঘাম, ধুলা-ময়লার মধ্যে যাদের দিন কাটে তাদের ত্বকের আলাদা যত্ন প্রয়োজন হয়। পরামর্শ দিয়েছেন শোভন মেকওভারের রূপ বিশেষজ্ঞ শোভন সাহা। 

ঢাকা শহরে কম সময়ে যাতায়াতের জন্য বাইকের জুড়ি মেলা ভার। রাইড শেয়ারিং অ্যাপসেও বাইকের ব্যবহার বেশি।

নারী-পুরুষ উভয়ই আজকাল বাইক চালালেও এখনো বাইকার হিসেবে পুরুষদের সংখ্যাই বেশি। সারা দিন এক রকম আবহাওয়া থাকে না, তাই বেশির ভাগ সময় রাস্তায় রোদে, বাতাসে, ধুলাবালির মধ্যে চলাচল করতে হয় বলে তাঁদের ত্বকের ওপর ঝক্কিটা বেশি যায়। তাই ত্বকের যত্নে বাইকারদের একটু আলাদা যত্ন নিতে হয়।
কথায় আছে পুরুষের আবার রূপচর্চা! বিষয়টা আসলে রূপচর্চা না বলে ত্বকের পরিচর্যা বলাই ভালো।

যেকোনো জিনিসের যত্ন না নিলে তা ভালো থাকে না। বাইক চালালে তাঁদের ত্বকের যত্নে একটু বেশি সচেতন হতে হবে।
সবার আগে নিজের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। বাইকারদের জন্য অনেক অনুষঙ্গ পাওয়া যায়।

এগুলো যাত্রাপথে সুরক্ষা দিতে সক্ষম। বাইকের গতির কারণে হাত, মুখ, গলা ও বুকসহ শরীরের খোলা অংশে বাতাসে কাঁপুনি লাগে। এ জন্য হাতে গ্লাভস পরতে হবে। মুখে মাস্ক পরতে হবে। হেলমেট পরলেও বাতাস থেকে চোখ, মুখ ও নাক সুরক্ষা পাবে।

এ সময় আরামদায়ক ঢিলেঢালা কাপড় পরে বাইকে চাপতে হবে।

যখন বাইরে বের হতে হবে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। এতে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে রক্ষা মিলবে। হেলমেট পরে থাকলেও অবশ্য রোদ থেকে মুখের ত্বক ও চোখ সুরক্ষা পাবে। বাইকারদের পোশাকের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ফুলস্লিভ শার্ট, টি-শার্ট পরাই ভালো। এতে পুরো হাত ঢাকা থাকে বলে ধুলাবালি ও রোদে পুড়ে যাওয়া থেকে বাঁচা যাবে। হাত ঢাকার জন্য বিশেষ হ্যান্ডকভার পাওয়া যায়। এগুলো পরতে পারেন। বাইকারদের বেশির ভাগ সময় বাইরেই থাকতে হয়। ত্বকের মতো ঠোঁটও বেশ গুরুত্বপূর্ণ। রাস্তায় বের হওয়ার আগে লিপবাম ব্যবহার করতে পারেন।

রাস্তায় ধুলাবালি, অন্যান্য যানবাহনের ধোঁয়া মোকাবেলা করতে হয়। এতে মুখের ত্বকে ময়লা জমে বেশি। এ জন্য প্রতিদিন বাসায় ফিরে ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুতে হবে। এরপর ভালো কোনো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। অনেক সময় মুখ রোদে পুড়ে যেতে পারে, সে জন্য ঘরোয়া কোনো প্যাক ব্যবহার করুন। আলু ও মসুর ডাল বেটে তাতে গোলাপজল মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন। বেসনে টমেটোর রস মিশিয়েও মুখে ব্যবহার করতে পারেন।  মুখের ময়লা, রোদে পোড়া ভাব দূর হবে।

নিজেকে পরিষ্কার রাখার জন্য ভালো করে একটু সময় নিয়ে গোসলের বিকল্প নেই। সপ্তাহে এক দিন গোসলের পানিতে তরল জীবাণুনাশক মিশিয়ে নিতে পারেন। বাইরে চলাচলের জীবাণু সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা মিলবে। পনেরো মিনিট। এরপর স্ক্রাবার দিয়ে হাত ও পায়ে ময়েশ্চারাইজার মালিশ করলে ত্বক ভালো থাকবে।

কিছু পরামর্শ

১. নিয়মিত রোদে বের হলে অবশ্যই প্রচুর পানি পান করবেন। প্রতিদিন খাদ্যতালিকায় তাজা ফলমূল ও শাক-সবজি রাখতেও ভুলবেন না।

২. সম্ভব হলে শসা কিংবা আলু থেঁতো করে ঠাণ্ডা করে লাগালেও উপকার পাবেন। এতে রোদে পোড়া দাগ দূর করতেও সাহায্য করবে।

৩. ত্বক যদি খুব বেশি পুড়ে যায় সঙ্গে সঙ্গে কিংবা বাসায় ফিরে পোড়া জায়গায় বরফ ঘষলে উপকার পাবেন।

৪. গোসলের পর ত্বকে ভিটামিন ‘ই’যুক্ত তেল লাগালে রোদে পোড়া ত্বক তাড়াতাড়ি সেরে যায়।

Mahfuzur Rahman

Publisher & Editor