শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

এসি যেভাবে ব্যবহার করলে বিল কম আসবে

প্রকাশিত: ০৬:৫২, ০৩ এপ্রিল ২০২৪ | ১৭

গরম বাড়তে শুরু করেছে। তীব্র গরমে দু’দণ্ড স্বস্তি পেতে অনেকেই এসি কেনার কথা ভাবেন। কিন্তু বাড়তি বিদ্যুৎ বিলের ভয়ে আবার সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে আসেন। কারণ মাসের শেষে একগাদা খরচ হোক এটা কেউই চান না। তবে এক্ষেত্রে কিছু কৌশল আছে যেগুলো জানা থাকলে এসি ব্যবহার করলেও বাড়তি বিদ্যুৎ খরচের ভয় কমবে অনেকটাই। কী সেই কৌশল? চলুন জেনে নেওয়া যাক-

১. খুব বেশি কম তাপমাত্রা নয়

অনেকে মনে করেন এসির তাপমাত্রা কমিয়ে রাখলে বিল কম আসবে। বিষয়টি আসলে উল্টো। আপনি যদি এসির তাপমাত্রা খুব বেশি কমিয়ে রাখেন তাহলে বিলও বেশি আসবে। তাই একটি সহনশীল তাপমাত্রা সেট করুন। খুব বেশি ঠান্ডা করার প্রয়োজন নেই। সেটি স্বাস্থ্যের জন্যও মানানসই নয়। এসি ২৬ ডিগ্রিতে রাখলেই যথেষ্ট। এতে কম্প্রেসরে কম চাপ পড়বে। যে কারণে বিদ্যুৎ বিলও সাশ্রয় হবে।

২. টাইমার দিয়ে রাখুন

এসি চালানোর পর অনেকেই টাইমার দিতে ভুলে যান বা দেন না। এতেও কিন্তু বিল বেশি আসে। কারণ এর ফলে সারারাত এসি চলে এবং স্বাভাবিকভাবেই বিদ্যুতের খরচ বেড়ে যায়। তাই ১ থেকে ২ ঘণ্টার টাইমার লাগালে এসি নিজে থেকেই পরে বন্ধ হয়ে যাবে। এতে বিদ্যুৎ সাশ্রয় হবে অনেকটাই।

৩. নিয়মিত সার্ভিসিং করাতে হবে

অনেকে খরচের ভয়ে নিয়মিত এসি সার্ভিসিং করান না। এটি মোটেও ভালো অভ্যাস নয়। এতে বরং আপনার বিদ্যুৎ বিল আরও বেড়ে যেতে পারে। তাই এসি নিয়মিত সার্ভিসিং করিয়ে নেবেন। এতে এসি ভালো কাজ করবে এবং বিদ্যুৎ খরচও কম হবে। তাই এদিকে খেয়াল রাখুন।

৪. সিলিং ফ্যান ব্যবহার

অনেকেই এসি চালালে আর সিলিং ফ্যান চালান না। কিন্তু এই দুটি একই সঙ্গে চালালে বিল বরং কম আসবে। কারণ আপনার বাড়ি এতে দ্রুতই ঠান্ডা হবে। তাই এসি চালানোর পাশাপাশি সিলিং ফ্যানও চালান। এতে বিদ্যুৎ বিল বাঁচবে অনেকটাই। তাই এখন থেকে এই অভ্যাস করুন। 

Mahfuzur Rahman

Publisher & Editor